জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে ১৪৪ ধারায় বিধিনিষেধ আরোপ

জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে ১৪৪ ধারায় বিধিনিষেধ আরোপ

Sylhet District
xfgd

সংবাদদাতা নোমানুল ইসলাম ইমরান কাগজ ডেস্ক: ঘটনা সূত্রে জানা যায়, গ্রামের কিছু অসাধু
দূর্বৃত্তরা নুরুল ইসলাম (৫৫)এর একমাত্র ব্যবসায়িক দোকান সহ অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করে আসছে।এতে নুরুল ইসলাম (৫৫) চিন্তিত হয়ে পড়েন গ্রামের দুর্বৃত্তদের কর্মকান্ডে।পরে তিনি আদালতের আশ্রয় নেন।এতে মাননীয়, অতিরিক্ত জেলা হাকিম আদালত,সিলেট কোম্পানীগঞ্জ বিবিধ মামলা নং: ৫১/২০২২ ইং- সেখানে আদালতের হস্তেক্ষেপ রয়েছে বলে জানা যায়।১৪৪ ধারা বহাল থাকা সত্বে ও সেখানে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের করা হচ্ছে। যার ফলে আশেপাশের বাড়িঘরগুলো বিলীন হওয়ার পথে। আরও জানা যায় ঘটনা সূত্রে, গত ১১/১২/২০২২ ইং- তারিখ সকাল অনুমান ৭.০০ ঘটিকার সময় পরিবারের উপর হামলা হয়। তারপর ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ভুক্তভোগী মোঃ নুরুল ইসলাম (৫৫) “সাবেক ইউ.পি সদস্য পিতা- হাজী মোঃ মদর আলী এর ছেলে কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ অভিযোগ করেন।

জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে ১৪৪ ধারায় বিধিনিষেধ আরোপ

এই বিষয়ে ভুক্তভোগী মো: নুরুল ইসলাম বলেন, অত্র থানাধীন কালীবাড়ী গ্রামে বাদীর বসত বাড়ীর সংলগ্ন পশ্চিম পাশে ধলাই নদীর পূর্ব তীরবর্তী নিম্ন তপশিল বর্ণিত জমি আমি পিতার সম্পদ ভোগ করে আসতেছি। কিন্তু বিবাদ বলিয়ান ও পরধন লোভী লোকরা বিধায় আমার বসত বাড়ীর সংলগ্ন পশ্চিম পাশে ধলাই নদীর পূর্ব তীরবর্তী তপশিল বর্ণিত জমিতে অজ্ঞাতনামা ৩০/৪০ জন বিবাদীর সহায়তায় জোরপূর্বক মাটি পুড়িয়া অন্যায়ভাবে আমার জমির শ্রেনী পরিবর্তন করিয়া পাথর উত্তোলন করেতেছে। আমি ও আমার পরিবারের লোকজন বিবাদীদেরকে বাধা দেওয়ায় বিবাদীরা আমাদেরকে খুন জখম করার হুমকি দেয়। এভাবে ৩ বছর ধরে সমস্যা করতেছে। এই বিষয়ে ভুক্তভোগী মো: নুরুল ইসলাম বলেন, প্রাণনাসের ভয়ে আমার পরিবার অনেক সদস্য বাড়ি ছাড়া হয়ে আছেন। আশেপাশের মানুষের কাছে হুমকি দেয়া হচ্ছে। এ অবস্থায় পরিবারে সদস্যরা বাড়িতে বসবাস করা হুমকির মুখে। যার ফলে ভুক্তভোগী গত ২১/০৩/২০২২ ইংরেজী তারিখে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিগণ স্থানীয় ভাবে আপোষ মিমাংশার চেষ্টা করিয়া ভুক্তভোগীকে বাড়িত রাখার কারণে এই সময়ের ভিতরে উল্লেখিত বিবাদীরা আমার জায়গা থেকে প্রায় ১০,০০,০০০/- টাকা মূল্যের পাথর উত্তোলন করিয়া নিয়ে যায় বলে জানা যায়।
ঘটনার সত্যতায় জানা যায়, বাদী মোঃ নুরুল ইসলাম (৫৫) “সাবেক ইউ.পি সদস্য পিতা- হাজী মোঃ মদর আলী, সাং–দলইরগাঁও কোনাপাড়া, হালসাং- কাবাড়ী, থানা- কোম্পানী, জেলা- সিলেট।
বিবাদীঃ ১। আব্দুল আজিদ (৪২) ২। আব্দুল হেকিম (৩৬), উভয় পিতা- আব্দুল জলিল , সাং- কালীবাড়ি। ৩। গিয়াস উদ্দীন (৩০), পিতা মৃত তোতা মিয়া
৪। মতিউর রহমান (৪৯), পিতা মৃত আব্দুল আজিজ ৫। আল-আমিন (২৬), পিতা- আব্দুল লতিফ ৬। আব্দুল লতিফ (৫৫)
৭। আব্দুল মতিন (৬০), উভয় পিতা- মৃত আছদ্দর ৮।আলী, লায়েক মিয়া (২২), পিতা- আব্দুল লতিফ। ৯। বিশাল মিয়া (২৫), পিতা- আতাউর রহমান,১০। আতাউর রহমান (৬৫), পিতা- মৃত আহুন্দর আলী, সর্ব সাং- কালীবাড়ী, থানা- কোম্পানীগঞ্জ, জেলা- সিলেট
স্বাক্ষীঃ ১। রফিক মিয়া (৫০), পিতা- হাজী মছদ্দর আলী
২। সাইফুল ইসলাম (২২),
৩। মঈনুল ইসলাম (২০),
উভয় পিতা- নূরুল ইসলাম,
৪। মইবুর রহমান (৫৫), পিতা- হাজী আক্রম উল্লা
৫। মুরজাহান বেগম (৪৮), স্বামী নুরুল ইসলাম সাং- কালীবাড়ী,
৬। জিয়াউর রহমান (৩৮), পিতা- মৃত কছির মিয়া, সাং- দলইরগাঁও, থানা -কোম্পানীগঞ্জ
[ ] জেলা- সিলেট, উপজেলা- কোম্পানীগঞ্জ, মৌজা- ভাটরাই, জে.এল নং- ৫৮, খতিয়ান নং— শ্রেণী- আমন। পরিমান- ২.০০ একর জমির উপর দখলদারি চলছে বলে জানা যায়।শেষ খবর পাওয়া পযন্ত ১৪৪ ধারায় পাথর উত্তোলন না করার নিষেধ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *